সর্বশেষ

'ডিএমপির অনুমতি ছাড়া সমাবেশ করলেই কঠোর ব্যবস্থা': ডিএমপি কমিশনার

প্রকাশ :


২৪খবরবিডি: 'ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বলেছেন, সাধারণ মানুষের মধ্যে উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। এই উৎকণ্ঠার কারণ হচ্ছে বিএনপি। যারা অনুমতি ছাড়া সমাবেশ করার চেষ্টা করবে, অরাজকতা, বিশৃঙ্খলা করবে, তাদের কঠোর হস্তে দমন করা হবে। বুধবার (২৬ জুলাই) রাত ৮টায় ২৪খবরবিডির সঙ্গে আলাপে এসব কথা বলেন তিনি। ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত কোনো দলকেই সমাবেশ করার অনুমতি দিইনি।' আমরা পরিবেশ পরিস্থিতি অবজার্ভ করছি। ঢাকায় অরজাকাতা বিশৃঙ্খলা এড়াতে ডিএমপির পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।'
 

'ডিএমপির অনুমতি ছাড়াই যদি কোনো দল সমাবেশের আয়োজন করে? এমন প্রশ্নের জবাবে খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, অনুমতি ছাড়া কারো সমাবেশ করার সুযোগ এ মুহূর্তে নেই। এরপরও কেউ সেটার চেষ্টা করলে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। আগামীকাল আওয়ামী লীগ বিএনপি পাল্টাপাল্টি সমাবেশকে কেন্দ্র করে উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ডিএমপি কমিশনার বলেন, বিএনপির সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছে কাল উৎকণ্ঠার মতো কিছু ঘটবে কি না। বিএনপি যদি পুলিশের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে অরাজকতা করে তাহলে হবে। তবে আমাদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। সরকারের পদত্যাগ, সংসদ ভেঙে দেওয়া, খালেদা জিয়াসহ রাজবন্দিদের মুক্তিসহ এক দফা দাবিতে কাল ঢাকায় মহাসমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। সোহরাওয়ার্দী অথবা পল্টন দলীয় কার্যালয়ের সামনে স্থান ব্যবহারের জন্য ডিএমপির কাছে অনুমতি চেয়েছিল দলটি । এ ব্যাপারে ডিএমপি থেকে জানানো হয়েছে, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান বা পল্টন নয় বিকল্প মাঠ খুঁজতে বলা হয়েছে বিএনপিকে। একই সঙ্গে ডিএমপির পক্ষ থেকে গোলাপবাগ মাঠে সমাবেশ আয়োজন করতে বিএনপিকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।'


'এ ব্যাপারে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের(ডিএমপি) কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, বিএনপি'কে অনুমতি দেয়া হয়নি। ওয়ার্কিং ডে, যানজট, জনদুর্ভোগ বিবেচনায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যান বা পল্টন দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া যাচ্ছে না। তিনি বলেন, আর 'হাইকোর্টের অবজারভেশনবিএনপিকে ' থাকায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মহাসমাবেশ করা যাবে না। আমরা বিকল্প মাঠ খুঁজে দেখতে বলেছি বিএনপিকে।

'ডিএমপির অনুমতি ছাড়া সমাবেশ করলেই কঠোর ব্যবস্থা': ডিএমপি কমিশনার

গোলাপবাগ মাঠ দেখতে যেতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। আবেদন করেও বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে সমাবেশ করার অনুমতি পায়নি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। তাই বাধ্য হয়ে ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) বেলা ৩টায় রাজধানীর পুরানা পল্টনের আন্দোলন চত্বরে (নোয়াখালী টাওয়ারের সামনে) প্রতিবাদ সমাবেশ করার ঘোষণা করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।'

Share

আরো খবর


সর্বাধিক পঠিত